২২শে অক্টোবর, ২০১৯ ইং | ৭ই কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | রাত ৪:২৭

ধর্ম

যেভাবে অজু করবেন

অজু ছাড়া নামাজ হয় না। অজু ছাড়া পবিত্র কোরআন স্পর্শ করা বৈধ নয়। আর সর্বক্ষণ অজু অবস্থায় থাকা পুণ্যের কাজ। পরকালে তা উচ্চমর্যাদার অধিকারী হওয়ার মাধ্যম। (ইবনে মাজাহ, হাদিস : ২৭৩, তিরমিজি : ৫৫) অজু শব্দের আভিধানিক অর্থ সৌন্দর্য ও পবিত্রতা। ইসলামী শরিয়তের পরিভাষায় অজু হলো মুখমণ্ডল ও হাত-পা পানি দ্বারা ধৌত করা এবং মাথা মাসেহ করা। (তারিফাত : ১/৮৪) ...

পবিত্র আখেরি চাহার শোম্বা আজ

পবিত্র আখেরি চাহার শোম্বা আজ বুধবার। হিজরি সালের সফর মাসের শেষ বুধবার মুসলিম বিশ্বে অত্যন্ত মর্যাদাপূর্ণ স্মারক দিবস হিসেবে পবিত্র আখেরি চাহার শোম্বা পালিত হয়। ১৪৪০ হিজরি সনের পবিত্র আখেরি চাহার শোম্বা উপলক্ষে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে আজ ওয়াজ ও মিলাদ-মাহফিলের আয়োজন করা হয়েছে। এ উপলক্ষে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসমূহ আজ বন্ধ থাকবে। ইসলামের সর্বশেষ, সর্বশ্রেষ্ঠ ও বিশ্বনবী হজরত মুহাম্মদ (সা.)-এর জীবনে আখেরি ...

জুমআর দিনের যে মর্যাদা ঘোষণা করেছেন বিশ্বনবি

জুমআর নামাজ আদায়ের দিন শুক্রবার। দুনিয়াতে যেমন এ দিন অন্য দিনগুলোর তুলনায় অনেক বেশি মর্যাদার। পরকালেও এ দিনের মর্যাদা অন্য দিনগুলোর তুলনায় বেশি হেবে। শুধু তাই নয়, প্রিয়নবি ঘোষণা করেন, যারা এ দিনের হক আদায় করবে, নামাজসহ বিশেষ আমলগুলো করবে তাদের মর্যাদাও হবে অন্য জিন ও ইনসানের তুলনায় অনেক বেশি। হাদিসে পাকে প্রিয়নবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম জুমআর দিন ও ...

প্রস্রাব-পায়খানার আদব ও শিষ্টাচার

ইসলামের বিধি-বিধান মানবজীবনের সব ক্ষেত্রে পরিব্যাপ্ত। এর থেকে বাদ যায়নি প্রস্রাব-পায়খানার মতো একান্ত ব্যক্তিগত বিষয়ও। রাসুলুল্লাহ (সা.) ইরশাদ করেছেন, ‘আমি তোমাদের জন্য পিতার মতো। আমি তোমাদের সব কিছু শিক্ষা দিয়ে থাকি। তোমরা প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে গেলে কেবলাকে সামনে বা পেছনে দিয়ে বসবে না। ডান হাত দিয়ে শৌচকার্য সম্পাদন করবে না।’ তিনি তিনটি ঢিলা ব্যবহারের নির্দেশ দিতেন এবং গোবর ও ...

বিয়ের আগে বর-কনের যে বিষয়গুলো জানা জরুরি

বিয়ে সামাজিক ও শরিয়তসম্মত বন্ধন। মানুষের চরিত্রকে সুন্দর ও নিরাপদ রাখতে, অবৈধ দৃষ্টি থেকে চোখকে হেফাজত করতে এবং লজ্জাস্থানের নিরাপত্তা ও সংরক্ষণে বিয়ের গুরুত্ব অপরিসীম। তাই দেনমোহর ধার্য সাপেক্ষে ইসলাম বিয়েকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়েছে। বিয়ের মাধ্যমেই মুসলিম প্রজন্মের আবির্ভাব। বিয়ের মাধ্যমে অর্জিত হয় মনের শান্তি, হৃদয়ের স্থিরতা, চরিত্রের পবিত্রতা ও জীবনের পরম সুখের ঠিকানা। বিয়ে সম্পাদনের আগে বর-কনের ব্যাপারে অভিভাবকদের ...

ভাগ্যের প্রতি বিশ্বাস স্থাপনের বিধান ও সুবিধা কী?

ভাগ্যের প্রতি বিশ্বাস স্থাপনে রয়েছে নানাবিধ সুফল। যে ব্যক্তি ভাগ্যকে অবিশ্বাস করলো সে ইসলামি শরিয়তের মূলনীতিসমূহের একটিকে অস্বীকার করলো। আর ভাগ্যকে অস্বীকার করার মাধ্যমে সে কুফরি করলো। পক্ষান্তরে ভাগ্যে বিশ্বাস স্থাপনকারীর জন্য রয়েছে অনেক সুফল। ভাগ্যের প্রতি বিশ্বাসস্থাপনকারী ব্যক্তি বিভিন্ন প্রকার নেক আমল ও ভালো গুণ অর্জন করার সুযোগ লাভ করে। যা মানুষের ব্যক্তি ও জাতীয় জীবনে কল্যাণ নিয়ে আসে। ...

ইসলামে মিতব্যয়ী হওয়ার তাগিদ

দৈনন্দিন জীবনে ব্যয়ের ক্ষেত্রে মধ্যমপন্থা অবলম্বনই মিতব্যয়িতা। অর্থাৎ কৃপণতা না করে প্রয়োজনমতো অথবা হিসাব করে ব্যয় করা। মিতব্যয় মানুষের সম্পদ বৃদ্ধি করে এবং অন্যকে সাহায্য করার পথ উন্মুক্ত করে। মিতব্যয়ীরা কখনোই নিঃস্ব হয় না। মিতব্যয়িতা ঈমানদারের অন্যতম বৈশিষ্ট্য। পবিত্র কোরআনের সুরা ফুরকানের ৬৩ নম্বর আয়াত থেকে মহান আল্লাহ তাঁর দয়াপ্রাপ্ত মুমিনদের কিছু বৈশিষ্ট্য বর্ণনা করেছেন। এগুলোর অন্যতম হলো মিতব্যয়িতা। ইরশাদ ...

চেয়েছিল দুনিয়া পেয়ে গেল জান্নাত

তাকালে চোখ ফেরে না। যেমনি দেখতে। রূপ যেন টসটস করে। দাসের ছেলে। এত সুন্দর। যেন মাবুদের আপন হাতে গড়া। যখন সে হাঁটে। বসরানগরী ঝলমলিয়ে ওঠে। নগরীতে ছিল এক সাধনা ঘর। একদিন ঢু মারে ওখানে। ইচ্ছা জাগে এখানের প্রধান হতে। সাধনায় বছর কাটল তার। কী রাত। কী দিন। অন্য সাধকরা মালেক দিনারকে মোরাকাবায় পেত। অবাক হতো ভারি। এত সাধনা মানুষ কীভাবে ...

ইসলামে তর্ক-বিতর্ক করার বিধান কী?

মানুষ সাধরণত মতের অমিল হলে পরস্পরে তর্ক-বিতর্কে লিপ্ত হয়। বিষয়টি সত্য কিংবা মিথ্যা হোক তর্ক-বিতর্ক সম্পর্কে ইসলামের বিধানই বা কী? এ বিষয়ে হাদিসে পাকে রয়েছে সুস্পষ্ট নির্দেশনা। মিথ্যা ও অসাড় কথাবার্তাসহ যুক্তি-তর্কের গোড়ামি থেকে বিরত থাকা ঈমানদারের প্রধান কাজ। বিষয়টি সত্য হোক কিংবা মিথ্যা হোক কোনো বিষয়েই বিতর্ক করা ঠিক নয়। তিনটি কাজের ফলে আল্লাহ তাআলা মুমিন বান্দার জন্য জান্নাতের ...

মাতা-পিতার বিবাদ শিশুর জীবনে প্রভাব ফেলে

স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে কোনো সমস্যা সমাধানের জন্য শান্তভাবে আলোচনা করা উচিত। বিশেষভাবে সন্তানের সামনে তর্কে বা বিবাদে জড়ালে তা শিশুর মধ্যে নেতিবাচক প্রভাব ফেলে। ঝগড়া পর্যায়ক্রমে খারাপ শব্দ ব্যবহার ও অপমান-অশ্রদ্ধা উসকে দেয়, যা শিশুর মনে ব্যাপক ক্ষত সৃষ্টি করে। শিশু চারপাশের মানুষের কাছ থেকে অন্যের প্রতি শ্রদ্ধা করতে শেখে, যা মাতা-পিতার বিবাদপূর্ণ পরিবার থেকে সম্ভব নয়। গবেষণায় দেখা গেছে, মাতা-পিতার ...