১৬ই এপ্রিল, ২০২১ ইং | ৩রা বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | সকাল ৯:২৪

শাহানা কার্টুনের ছয় পর্ব মাধ্যমিকের ক্লাসে দেখানোর নির্দেশ

মাধ্যমিক পর্যায়ে শারীরিক শিক্ষা এবং বাংলাদেশ ও বিশ্বপরিচয় বইয়ের সংশ্লিষ্ট অধ্যায় পাঠে ‘শাহানা কার্টুন’-এর ছয় পর্ব দেখানোর নির্দেশনা দিয়েছে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতর (মাউশি)। ষষ্ঠ থেকে দশম শ্রেণি পর্যন্ত প্রতিটি শ্রেণিতেই নির্দিষ্ট পাঠে এই কার্টুন দেখাতে বলা হয়েছে।এ বিষয়ে মাউশির পরিচালক (প্রশিক্ষণ ও উন্নয়ন) অধ্যাপক ড. প্রবীর কুমার ভট্টাচার্য্য বলেন, ‘শাহানা কার্টুনের ছয়টি পর্ব নির্ধারণ করা হয়েছে শিক্ষাক্রম অনুযায়ী। মাঠপর্যায়ের সব কর্মকর্তা ও প্রতিষ্ঠান প্রধানকে ২৬ জানুয়ারি এই নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। ফেব্রুয়ারির মাঝামাঝি সব প্রতিষ্ঠানে কার্টুনের সিডি সরবরাহ করা হবে। যেসব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ইন্টারনেটের ব্যবস্থা রয়েছে, সেখানে  ইউটিউবের মাধ্যমে এখনই দেখাতে পারবে।’

শিক্ষাক্রমের সঙ্গে সঙ্গতি রেখে আরও কার্টুন তৈরি করা হলে আগামীতে আরও পর্ব যুক্ত করা হবে বলেও জানান তিনি।

তিনি আরও বলেন, ‘মাধ্যমিক বিদ্যালয়সহ মাধ্যমিক পর্যায়ের কারিগরি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ও মাদ্রাসার (দাখিল) নির্দিষ্ট ক্লাসে দেখানো হবে।’

বয়ঃসন্ধিকালীন সমস্যা, যৌন হয়রানি, বাল্য বিয়ের কুফল, নারীর ক্ষমতায়নসহ বিভিন্ন সমস্যা থেকে উত্তরণের পথ খোঁজে ১৭  বছরের কিশোরী শাহানা। বন্ধুদের সহায়তায় সামাজিক আন্দোলনের মাধ্যমে তার উদ্যোগ সফল হয়। সমাজে বিদ্যমান এসব সমস্যা সমাধানের গল্পই দেখানো হয়েছে শাহানা কার্টুনে।

২০১৫ সালে বাংলাদেশের জন্য নির্মিত হয় ‘শাহানা ইন্সপাইরিং চেঞ্জ’ নামের এই কার্টুনটি। জাতিসংঘ জনসংখ্যা তহবিল (ইউএনএফপিএ) এবং সুইজারল্যান্ড দূতাবাস যৌথভাবে এটি তৈরি করে।কোন ক্লাসে কোন কার্টুন

মাউশির নির্দেশনায় বলা হয়েছে, পাঠ-পরিকল্পনার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট বিষয়ে নির্বাচিত কার্টুনের পর্বগুলো ষষ্ঠ থেকে দশম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের ক্লাসে দেখানো হবে।

ষষ্ঠ শ্রেণির শারীরিক শিক্ষা বইয়ের ‘আমাদের জীবনে বয়ঃসন্ধিকাল’ শীর্ষক অধ্যায়ের পাঠ পরিকল্পনা তৈরি করে ‘নতুন অনভূতি নতুন চিন্তা’ শীর্ষক চার নম্বর পর্ব ও ‘মজার খেলা’ শীর্ষক দশম নম্বর পর্বটি ক্লাসে দেখানো হবে। চার নম্বর পর্বের বিষয়বস্তু বয়ঃসন্ধিকালের শারীরিক পরিবর্তন ও ব্যক্তিগত পরিচ্ছন্নতা। এ পর্বের বিষয়বস্তু বয়ঃসন্ধিকালের শারীরিক পরিবর্তন, স্বপ্নদোষ ও ভ্রান্ত ধারণা।

সপ্তম শ্রেণির বাংলাদেশ ও বিশ্বপরিচয় বইয়ের ‘বাংলাদেশের সামাজিক সমস্যা’ শীর্ষক অধ্যায়ে পাঠ পরিকল্পনা তৈরির মাধ্যমে ‘শাহানা ও তার সঙ্গীরা’ শিরোনামের এক নম্বর পর্বটি দেখানো হবে। এ পর্বের বিষয়বস্তু বাল্য বিবাহ, ২০ বছরের আগে সন্তান জন্মদানে স্বাস্থ্যগত জটিলতা, ব্যাল্য বিবাহ প্রতিরোধ ও আইনি সহায়তা।

অষ্টম শ্রেণির শারীরিক শিক্ষা বইয়ের ‘আমাদের জীবনে প্রজনন স্বাস্থ্য’ শীর্ষক অধ্যায়ের পাঠ পরিকল্পনা তৈরি করে শাহানা কার্টুনের ‘সঠিক সময়ে সঠিক যত্ন’ শীর্ষক তিন নম্বর পর্ব দেখাতে হবে। এ পর্বের বিষয়বস্তু অপরিণত বয়সে গর্ভধারণ, কন্যা শিশুর যত্ন, স্বাস্থ্যগত ঝুঁকি ও প্রসব পরবর্তী ফিস্টুলা।নবম ও দশম শ্রেণির বাংলাদেশ ও বিশ্বপরিচয় বইয়ের ‘বাংলাদেশের সামাজিক পরিবর্তন’ অধ্যায়ের পাঠ পরিকল্পনা তৈরি করে ‘আমরাও পারি’ শীর্ষক পাঁচ নম্বর পর্বটি ক্লাসে দেখাতে হবে। এ পর্বের বিষয়বস্তু আত্মনির্ভরশীলতা, নারীর পেশাগত বৈচিত্র্য।

নবম ও দশম শ্রেণির বাংলাদেশ ও বিশ্বপরিচয় বইয়ে ‘বাংলাদেশের সামাজিক সমস্যা ও প্রতিকার’ অধ্যায়ের পাঠ পরিকল্পনা তৈরি করে ‘আমরাই রুখবো’ শীর্ষক দুই নম্বর পর্বটি ক্লাসে দেখাতে হবে। এ পর্বের বিষয়বস্তু হচ্ছে যৌন হয়রানি, নারী নির্যাতন/শারীরিক নির্যাতন, যৌতুক ও বাল্যবিবাহ।

পাঠ পরিকল্পনা

শিক্ষক সংশ্লিষ্ট যে অধ্যায় পড়াবেন সেই অধ্যায়ে কার্টুন দেখানোসহ সময় বণ্টন করে দেওয়া হয়েছে। নির্দিষ্ট ক্লাসে শিক্ষক শিক্ষার্থীদের সঙ্গে কুশল বিনিময় করবেন ৩-৫ মিনিট। এসময় শিক্ষার্থীদের কাছে জানতে হবে তারা ভিডিও দেখতে আগ্রহী কিনা। তবে ভিডিও’র বিষয়বস্তু সম্পর্কে কোনও ধারণা দেওয়া যাবে না।

এরপর ১০-১৫ মিনিট কার্টুন দেখানো হবে।  আগে থেকে ভিডিও কম্পিউটারে প্রবেশ করিয়ে রাখা যাবে না। ভিডিও চলাকালে শিক্ষক কোনও মন্তব্য করবেন না।

১০ মিনিট দলীয় কাজ, ভিডিও উপস্থাপন শেষে শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের দলীয় কাজ করতে দেবেন। পরপর দু’টি বেঞ্চ মিলে একটি দল করতে হবে। প্রথম বেঞ্চ ঘুরিয়ে দুই বেঞ্চের শিক্ষার্থীরা মুখোমুখি হয়ে দলীয় কাজ করবে। দলীয় কাজের জন্য প্রশ্ন নির্ধারিত রয়েছে।

পরবর্তী ১০ মিনিট দলীয় কাজ উপস্থাপন। প্রতিটি দল থেকে একজন করে প্রতিনিধি দলীয় কাজের উপস্থাপন করবে। দলীয় কাজ উপস্থাপনের পর অন্য দল থেকে প্রশ্ন বা মন্তব্য করবে। দলীয় উপস্থাপনা শেষে সব দল প্রশ্ন আছে কিনা তা জানতে চাইবে।

প্রকাশ :জানুয়ারি ২৯, ২০২০ ১:৪৮ অপরাহ্ণ