১৪ই ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং | ২৯শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | ভোর ৫:২৬

খারাপ ছেলেদের বেশি পছন্দ করে মেয়েরা

বিজ্ঞান-প্রযুক্তি ডেস্ক : বিজ্ঞানীদের মতে, নারীরা সাইকোপ্যাথিক পুরুষদের প্রতি আকৃষ্ট হোন আত্মবিশ্বাস এবং চমৎকার কথাবার্তার কারণে। সাম্প্রতিক একটি গবেষণায় ভিডিও দেখে কাঙ্ক্ষিত পুরুষদের রেটিং করতে বলার গবেষকরা দেখতে পেয়েছেন- নারীদের কাঙ্ক্ষিত পুরুষের তালিকায় এমন পুরুষরা ছিলেন যাদের বিজ্ঞানীরা সাইকোপ্যাথিক হিসেবে চিহ্নিত করেছিলেন।

বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, সাইকোপ্যাথিক প্রবণতা আরো আত্মবিশ্বাসী হওয়ার, নিজের প্রতি স্বাচ্ছন্দ্যবোধ এবং ঠিক কি বলতে হবে তা জানার সম্ভাবনা তৈরি করে। সাইকোপ্যাথিক পুরুষদের আকর্ষণ করার ক্ষমতা রয়েছে বা অন্তত মিথ্যা ভান করার ক্ষমতা রয়েছে- যেন তারা যা চায় তা পেতে পারে, এই বিষয়টি তাদের আকর্ষণীয় করে তুলেছে।

এ গবেষষার গবেষক কানাডার ব্রুক ইউনিভার্সিটির পিএইচডি শিক্ষার্থী ক্রিস্টোফার ব্রাজিল বলেন, ‘সাইকোপ্যাথিক পুরুষদের ব্যক্তিত্বের স্টাইল রয়েছে, যা প্রেমের প্রতিযোগিতায় নারীদের কাছে তাদের আকর্ষণীয় করে তোলে।’

মনোবিজ্ঞান বিষয়ক সংবাদমাধ্যম সাইপোস্টকে তিনি বলেন, ‘এটি এ কারণ হতে পারে যে, তারা অতিরিক্ত আত্মবিশ্বাসী বা নারীর দৃষ্টি আকর্ষণ করার জন্য ঠিক কী বলতে হবে তা জানে।’

ক্রিস্টোফারের মতে, সাইকোপ্যাথিক ব্যক্তিরা তাদের মুগ্ধকর এবং আকর্ষণীয় ব্যক্তিত্বকে ব্যবহার করতে পারেন বিশ্বাস এবং কামনা অর্জনে, তবে তাদের চূড়ান্ত লক্ষ্যটি স্বার্থপর আনন্দ বলে মনে হয়। এজন্য কোনো সাইপ্যাথ ব্যক্তির সম্পর্কের হাত থেকে নিজেকে রক্ষা করতে তাকে ভালোভাবে জানাটা জরুরি।

ক্রিস্টোফার তার গবেষণার অংশ হিসেবে ৪৬ জন পুরুষকে রোমান্টিকতা নিয়ে দুই মিনিটের ভিডিও ক্লিপ তৈরি করতে বলেছিলেন। গবেষণা সহকারী একজন নারীর মাধ্যমে তাদের সাক্ষাৎকার নেওয়া হয়েছিল যেখানে পুরুষরা সম্পর্কের প্রথম দিনে কি করবেন বা সম্পর্কের ক্ষেত্রে তারা কী খুঁজবেন তা নিয়ে কথা বলেন। তারপর এই একই পুরুষদের সাইকোপ্যাথিক বৈশিষ্ট্য ছিল কিনা তা পরিমাপ করতে এবং তাদের সামাজিক বুদ্ধি এবং যৌন সম্পর্কে তাদের মতামত নির্ধারণের জন্য পরীক্ষা করা হয়েছিল।

এরপর ১০৮ নারীর একটি গ্রুপ ভিডিওগুলো দেখে এবং আকর্ষণীয়তার উপর পুরুষদেরকে রেটিং করে- যেমন কতটা সেক্সি বলে মনে করেছিল এবং আত্মবিশ্বাস কেমন।

ফলাফলে ক্রিস্টোফার দেখতে পেয়েছেন, একজন পুরুষ সাইকোপ্যাথি পরীক্ষায় যত বেশি রেটিং পেয়েছিলেন, নারীরা তাকে তত বেশি আকর্ষণীয় বলে মনে করেছেন।

ইভোলিউশনারি সাইকোলজিক্যাল সায়েন্স জার্নালে প্রকাশিত এই গবেষণায় তিনি উল্লেখ করেন, আকর্ষণীয় মনে হলেও এ ধরনের পুরুষদের ভালোবাসা নকল হতে পারে। তবে এ নিয়ে আরো গবেষণার দরকার রয়েছে বলে তিনি মনে করেন।

প্রকাশ :অক্টোবর ২৮, ২০১৯ ৬:০৮ অপরাহ্ণ