২২শে অক্টোবর, ২০১৯ ইং | ৭ই কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | ভোর ৫:৩৬

ঈদের দিন সড়কে গেছে ১৩ প্রাণ

ডেস্ক রিপোর্ট:

ঈদের দিন গতকাল বুধবারও (২২ আগস্ট) দেশের বিভিন্ন স্থানে সড়ক দুর্ঘনায় ১৩ জন নিহত হয়েছে। এসব দুর্ঘটনায় আহত হয়েছে অন্তত ২৫ জন।

প্রতিনিধিদের পাঠানো প্রতিবেদন অনুযায়ী গতকাল বুধবার (২২ আগস্ট) সকাল থেকে রাত পর্যন্ত সিরাজগঞ্জ, বগুড়া, নীলফামারী ও কুষ্টিয়ায় এসব দুর্ঘটনা ঘটে।

সিরাজগঞ্জ

সিরাজগঞ্জে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় তিনজন নিহত ও ১৬ জন আহত হয়। আহতদের উদ্ধার করে সিরাজগঞ্জ সদরসহ স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। জানা গেছে, বুধবার দুপুরে সিরাজগঞ্জের সলঙ্গায় যাত্রীবোঝাই একটি ট্রাকের সঙ্গে মাইক্রোবাসের মুখোমুখী সংঘর্ষ হয়। এতে ভুট্টু প্রামানিক নামের এক গরুর ব্যাপারী নিহত হন। দুর্ঘটনায় ট্রাক ও মাইক্রোবাসের চালকসহ ছয়জন আহত হয়। নিহত ভুট্টু প্রামানিক পাবনার চাটমহর উপজেলার কুখড়াগারী গ্রামের মৃত হামজা প্রামানিকের ছেলে।

একইদিন দুপুর ১টার দিকে বঙ্গবন্ধু সেতুর পশ্চিম সংযোগ সড়কের ঝাঔল ব্রিজের নিকট উত্তরবঙ্গগামী যাত্রীবোঝাই একটি ট্রাক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে পড়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই অজ্ঞাতপরিচয় একজন নিহত হন। এ ছাড়া হাসপাতালে মুনসুর রহমান নামে আরও একজন মারা যান। এতে আহত হন অন্তত ১০ জন। ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে হতাহতদের উদ্ধার করে।

বগুড়া

বুধবার জেলার শাজাহানপুর উপজেলার নাঝিরাবাজার এলাকার ঢাকা-বগুড়া মহাসড়কে বাসের সঙ্গে অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষে তিনজন হয়। এ ছাড়া জেলার শেরপুরে গাছের সঙ্গে মোটরসাইকেলের ধাক্কায় নিহত হয় দুইজন।

বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির এসআই আবদুল আজিজ জানান, সকাল সাড়ে ৮টার দিকে নাঝিরাবাজার এলাকায় রংপুরগামী আলহামরা পরিবহনের একটি বাসের সঙ্গে অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলেই একজন নিহত হন। হাসপাতালে নেওয়ার পর মারা যায় আরও দুইজন। এ ঘটনায় আহত দুইজন চিকিৎসাধীন।

এ ছাড়া বগুড়ার শেরপুর উপজেলার শালপাড়া বোয়ালকান্দি এলাকায় বেলা ১২টার দিকে একটি মোটরসাইকেল নিয়ন্ত্রণ হারালে দুইজন নিহত হয়। নিহতরা হলেন সিরাজগঞ্জের কাজীপুর উপজেলার হাজরাহারি গ্রামের সোহরাব হোসেনের ছেলে শামীম আকাশ (২৮) ও তার প্রতিবেশী চাচাত ভাই সোহেল রানা (২৭)।

কুমিল্লা

কুমিল্লার বিজড়া এলাকার একটি পেট্রোল পাম্পের সড়কের সামনে দোয়েল পরিবহনের বাসচাপায় আলামিন নামের এক মোটরসাইকেল চালক নিহত হন। এতে আহত হন একজন। তার নামপরিচয় পাওয়া যায়নি। বুধবার রাত ৮টার দিকে এ হতাহতের ঘটনা ঘটে।

নীলফামারী

নীলফামারী জেলা সদরে সড়ক দুর্ঘটনায় আখতারুল ইসলাম (২৮) নামের এক মোটরসাইকেলচালক নিহত হয়েছেন। এ সময় আহত হয় অপর মোটরসাইকেল আরোহী দুই সহোদর শফিকুল ইমলাম (৩০) ও সাদেকুল ইসলাম (২২)। বুধবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে নীলফামারী-সৈয়দপুর সড়কে ইকু জুটমিল এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত আখতারুল জেলা সদরের সংগলশী ইউনিয়নের বাদশাপাড়া গ্রামের তৈয়ব আলীর ছেলে। আহত দুই ভাই একই গ্রামের হেফাজুল ইসলামের ছেলে। তাদেরকে নীলফামারী সদর আধুনিক হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, ওই তিন ব্যক্তি একটি মোটরসাইকেলে করে সৈয়দপুরের দিকে যাচ্ছিলেন। এ সময় ইকু জুট মিল নামক স্থানে বিপরিতমুখী একটি আটোবাইকের ধাক্কায় সড়কে ছিটকে পড়েন তারা। উপস্থিত লোকজন তাদেরকে উদ্ধার করে নীলফামারী সদর আধুনিক হাসপাতালে নিলে সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক মোটরসাইকেলচালক আখতারুল ইসলামকে মৃত ঘোষণা করেন। অপর আহত দুই ভাই শফিকুল ও সাদেকুল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

কুষ্টিয়া

কুষ্টিয়ায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় শিশুসহ তিনজন নিহত ও চারজন আহত হয়েছে। নিহতদের মধ্যে ট্রাকের ধাক্কায় মাহেন্দ্রের দুই যাত্রী মারা যান। অন্যদিকে ট্রাকচাপায় মারা যায় এক শিশু। বুধবার দুপুরে কুষ্টিয়া-ঝিনাইদহ মহাসড়কের বটতৈল এলাকা ও কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলায় এ সড়ক দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন চুয়াডাঙ্গা জেলার আলমডাঙ্গার শিপন (২৮), কুষ্টিয়ার দৌলতপুরের শাহাবুল (১২)। তবে ট্রাকচাপায় নিহত শিশুর নাম জানাতে পারেনি পুলিশ।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, বুধবার দুপুরে কুষ্টিয়া-ঝিনাইদহ মহাসড়কের বটতৈল এলাকায় কুষ্টিয়াগামী একটি যাত্রীবাহী মাহেন্দ্রর সঙ্গে ট্রাকের ধাক্কা লাগে। এতে ঘটনাস্থলেই মাহেন্দ্রে থাকা দুই যাত্রীর মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় কয়েকজন যাত্রীকে গুরুতর অবস্থায় কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়।

অপরদিকে কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার তারাগুনিয়া বাজারে ট্রাকচাপায় এক শিশুর মৃত্যু হয়। দুপুরে রাস্তা পার হওয়ার সময় ট্রাকটি পেছন থেকে চাপা দিলে মারা যায় শিশুটি। তবে তার পরিচয় জানা যায়নি।

প্রকাশ :আগস্ট ২৩, ২০১৮ ১২:০৮ অপরাহ্ণ