২২শে অক্টোবর, ২০১৯ ইং | ৭ই কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | রাত ১১:১৮

মাদরাসা ছাত্রীকে অপহরণের দায়ে দুই যুবকের ১৪ বছর করে কারাদণ্ড

নিজস্ব প্রতিবেদক:

শেরপুরে ঝিনাইগাতীতে দশম শ্রেণিতে পড়ুয়া এক মাদরাসা ছাত্রীকে অপহরণের দায়ে দুই যুবকের ১৪ বছর করে সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন শিশু আদালত। বৃহস্পতিবার দুপুরে শিশু আদালতের বিচারক অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ মোহাম্মদ মোসলেহ উদ্দিন এ রায় দেন।

দণ্ডপ্রাপ্ত যুবকরা হলেন- ঝিনাইগাতীর কুচনীপাড়া গ্রামের কামাল হোসেনের ছেলে লোকমান হোসেন (২৬) ও মো. ফরহাদ আলীর ছেলে বিকম মিয়া (২২)।

আদালতের পিপি (সরকারি কৌঁসুলি) অ্যাডভোকেট গোলাম কিবরিয়া বুলু জানান, দণ্ডপ্রাপ্তদের উপস্থিতিতে দেয়া এ রায়ে অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় অন্য চারজনকে বেকসুর খালাস দেয়া হয়েছে।

মামলার নথির বরাত দিয়ে তিনি জানান, ঝিনাইগাতীর কুচনিপাড়া গ্রামের বাসিন্দা পার্শ্ববর্তী ভটপুর দাখিল মাদরাসায় দশম শ্রেণিতে পড়তো ছাত্রীটি। ২০১৬ সালের ৩০ মার্চ সকাল ১০টার দিকে বসতবাড়ি থেকে মাদরাসায় যাওয়ার পথে ওই ছাত্রীকে দণ্ডপ্রাপ্তরা জোরপূর্বক অপহরণ করে নিয়ে যায়। এ ঘটনায় অপহৃতার মা বাদী হয়ে তিনজনের নাম উল্লেখসহ ছয়জনকে আসামি করে ঝিনাইগাতী থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা দায়ের করেন। পরে পুলিশ অপহৃতাকে উদ্ধার ও অপহরণের সঙ্গে জড়িতদের গ্রেফতার করে। গত বছরের ২৮ জুলাই ঝিনাইগাতী থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) আব্দুল করিম ছয়জনকে অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন। আদালত নয়জন সাক্ষীর সাক্ষ্য গ্রহণ করে বৃহস্পতিবার দুইজনের ১৪ বছর কারাদণ্ড ও চারজনকে খালাস দেন।

দৈনিক দেশজনতা /এন আর

 

প্রকাশ :সেপ্টেম্বর ২১, ২০১৭ ৬:৫৮ অপরাহ্ণ